স্মাগমাগ ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগ-ইন


আমার বন্ধু ফেরদৌস স্মাগমাগ(‘ target=’_blank’>SmugMug)এর একটি আজীবন প্রো একাউন্ট পেলো। যেটির মূল্য বাৎসরিক দেড়শো ডলার করে।

স্মাগমাগ কী? এটি ইয়াহু’র ফ্লিকার(flickr) বা গুগলের পিকাসা(picasa)’র মতোই ফটো জমা রাখার একটি পোর্টাল। তবে স্মাগমাগ কেবল যে ফটো হোস্টিং করে তা’ইনা, বরং এখানে আপনার তোলা ছবি রেখে বিক্রিও করতে পারেন। এখন বলবো সেই কাহিনী কেনো স্মাগমাগ তাকে একাউন্টটি পুরস্কার দিলো।

গত সেপ্টেম্বরের শেষে একটি ফ্রীল্যান্সিং সাইটে দেখলাম দুইশো ডলারে একটি কাজ দিয়েছে। ফ্লিকার, পিকাসা’র মতো করে যাতে স্মাগমাগ এর ছবিকেও খুব সহজেই ওয়ার্ডপ্রেস ব্লগে আনা যায়। লোকটি তখন SmugWP এবং SmugSidebarWidget এমন দুটি WordPress এর প্লাগ-ইন ব্যবহার করে আসছিলো। কিন্তু অসুবিধা হলো একটিতে একটা একটা করে ছবি আসে, ছবির টাইটেল বা বিবরণ লিখে দিতে হয়(কী বিরক্তিকর তাইনা?)। অন্যটি আরএসএস ফীড হিসেবে ছবি আনে কিন্তু দৈব অনুক্রমে এবং ওটি কেবল ক্ষুদ্রাকৃতি ছবি আনতে পারে। তো আমি এটি বিড করলাম ১২০ডলারে এবং মি.ব্রায়ান ব্রিগ(আমার ক্লায়েন্ট) ঘোষণা করল যদি ঠিকমতো করা যায় তাহলে বোনাস দেবে।
প্রথমে ক’দিন আগের প্লাগ-ইন দুটো ঘাটাঘাটি করতে করতে কুল-কিনারা পাচ্ছিলাম না। এদিকে ব্রায়ান জিজ্ঞেস করছিল কাজ কতদূর এগুলো। হঠাৎ একদিন ফেরদৌস ঘোষণা দিলো ব্রায়ানকে বলেন টাকার ব্যবস্থা করতে কাজের একটা দারুণ উপায় বের হয়েছে। ও দেখালো পিএইচপিক্লাসেস থেকে লাস্টআরএসএস(lastRSS) ব্যবহার করে চমৎকার একটি সমাধান হয়ে গেছে। আমি কাজের অগ্রগতি দেখে ব্রায়ানকে জানালাম যে তোমার কাজ হচ্ছে কিন্তু ওই দুটি প্লাগ-ইনের কোনোটিই মডিফাই না করে । সম্পূর্ণ নতুন প্লাগ-ইন তৈরী করে। ব্রায়ানের আরো চাহিদা ছিলো, ডেস্কটপ ব্লগিং ক্লায়েন্ট সফটওয়্যার যেমন: উইন্ডোজ লাইভ রাইটার ও স্ক্রাইব ফায়ার এগুলো থেকেও যেন প্লাগ-ইনের কাজ করা যায়। আর ছবি যখন ক্লিক করা হবে তখন যেন স্মাগমাগ/ফ্লিকার/পিকাসা’তে নিয়ে না যায়, বরং লাইটবক্স২ এর প্রযুক্তি ব্যবহার করে স্লাইড শো এর মতো করতে হবে। তাকে সেসবও বলা হলো করা সম্ভব এবং কাজ এগিয়ে চলেছে। কাজের নমুনা দেখে সেতো মহাখুশী🙂
আমি বললাম তুমি যে বোনাস দিতে চেয়েছো আর বলেছো এর সাথে ফ্লিকার, পিকাসা এসবের সাপোর্ট দেয়া গেলে সমপরিমাণ বোনাস দেবে, এখন বলো কী দেবে। সে বললো, পিকাসা আর ফ্লিকারের অন্য ভালো ভালো প্লাগ-ইন আছে সুতরাং তার দরকার নেই। কী করা বললাম, আমরা তো তার জন্যও খেটেছি এতোদিন। দেখলাম মেইলের রিপ্লাই আসছে না। ভাবলাম লেবু বেশি টিপে তেঁতো করে দিলাম কীনা। এদিকে ওর কাছ থেকে তখনো টাকা হাতে নেয়া হয়নি। ফ্রী-ল্যান্স সাইটটিতে ঢুঁ-মেরে দেখি ১২০ এর জায়গার ১৫০ডলার দিয়েছে আর আরো ৭৫ডলার অগ্রিম এসক্রো(escrow) করেছে। এসক্রো হলো এমন ধরণের পেমেন্ট যা আমি প্রোগ্রামার হিসেবে বাতিল করতে পারবো আর সে ওটি ফিরিয়ে নিতে হলে অমীমাংসিত(dispute) বলে অভিযোগ করে তবেই টাকা ফেরৎ পাবে। আর তদন্ত না করে তা করবে না পোর্টাল কর্তৃপক্ষ। বুঝতেই পারছেন পাথরে পাঁচকিল।🙂
ব্রায়ান জানালো কাজের চূড়ান্ত অগ্রগতি দেখলেই সে বাকী টাকা রিলিজ করে দেবে। আর হ্যাঁ এই কাজ শেষে প্লাগ-ইনটি বিনামূল্য যাতে সবাই ব্যবহার করতে পারে তার জন্য সে ওয়ার্ডপ্রেসে সাবমিট করার কথাও জানায়। আমি জিজ্ঞেস করলাম, তাতে কি তোমার নাম থাকবে নাকি আমাদের? সে বললো ওয়ার্ডপ্রেস থেকে আমিতো অনেক প্লাগ-ইন বিনামূল্যে ব্যবহার করেছি সময়ে সময়ে, এবার এটি সেখানে দান করে তার প্রতিদান দেবো।😀
ব্রায়ান আরো জানিয়েছে যদি এটিকে আরো ব্যবহার বান্ধব করা যায়,( যেমন এডমিন প্যানেল থেকে ফরম দিয়ে বিভিন্ন অপশন রদবদল করা) তাহল আরো ৭৫ডলার দেবে বোনাস!
অবশেষে প্লাগ-ইনটির একটি মোটামুটি অনবদ্য কিছু ফীচারযুক্ত করে গত সপ্তাহে ফেরদৌস সাবমিট করলো ওয়ার্ডপ্রেসে। ওয়ার্ডপ্রেস যাচাই ও পর্যালোচনা করে সেটিকে তাদের সাবভার্শনে যুক্ত করার অনুমতি দিয়ে দিলো।
এদিকে স্মাগমাগ এর একটি বিশেষ ঘোষণা ছিল যে কেউ যদি তার কোন কাজে প্রত্যক্ষভাবে স্মাগমাগযুক্ত করে অবদান রাখে তাহলে তারা তাকে আজীবন প্রো একাউন্ট দিয়ে দেবে। ফেরদৌস সেটিতে আবেদন করলো, গতকাল তারা তাকে প্লাগ-ইনটির কার্যকারীতা পরীক্ষার পর আজীবন একটি প্রো একাউন্ট সম্পূর্ণ ফ্রী দিয়ে দিলো।🙂
ক্যারি অন ফেরদৌস! Way to go!

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s