Fixing grub boot-loader after installing Windows


If you had linux installed and later thought of installing Windows, it will overwrite your grub boot loader by default.

The fix is quick and easy. So, I would like to document the easy steps for reference.

Previously, I wrote for similar fixing but in Bangla উবুন্তু ৯.১০ : কারমিকে আপগ্রেড করায় সৃষ্ট সমস্যা এবং প্রতিকার

For this solution you gotta have a live CD or USB bootable through which you can Run Ubuntu/Lubuntu (or Mint etc debian distros).

1. Boot up your machine with the LiveCD/USB, you can run the installer just to see the device on HDD containing your linux installation.

It would be something like /dev/sda1 and in ext4.

2. If you haven’t run the installer, you can see the partition table using gparted. Press Alt-F2 and type gparted and hit Enter. 

If it tells you that gparted needs root permission then, instead of just ‘gparted’ type in ‘gksu gparted’ and hit enter. If you wanna know about gksu. Now if you have identified your linux’s / folder partition go to next step.

3. On your terminal (hit Ctrl+Alt+T to pop open) type: sudo mount /dev/sdXY /mnt  here, replace X with a,b,h etc as you found above. Y is the number. For mine it was: sudo mount /dev/sda1 /mnt

4. You haven’t done anything destructive or permanent in the above steps. At this step you will try to revive the old grub. If your ‘/’ (root) folder’s location was /dev/sda1, now you will use it as /dev/sda to refer to the device as a whole. NOT WITH NUMBER

So, at the terminal you will type: sudo grub-install –root-directory=/mnt/ /dev/sdX

It it showed success. You are done. Reboot machine and you will see your old grub2 boot loader. But, Windows might not appear there. Dont panic! Go to next step to fix. 🙂

5. Boot up in your good old Ubuntu. And fire up your terminal again. Type: sudo update-grub 

It will fetch your windows to the boot loader as well. Cheers!

Advertisements

USB Startup disk


You just installed Windows over your Ubuntu box and that ruined your boot menu leaving Windows as your only option. So, you are forced to use Windows.

Now, every time that happens you gotta find a reliable link that actually works. So, I decided to blog it instead of just sharing on twitter or FB, which I do millions and I never would go browse them while I am at office or with quality company (I wont like someone stalk behind me or let them think I am wasting time at facebook!).

Enough talks, the only valuable input to this post is, I have used  “Universal USB Installer” and that actually work! Others should work too at this HowToGeek article.

Running Lubuntu live CD


I’m using Lubuntu 10.04 Live CD on my home desktop for a couple of weeks now. Have chosen Lubuntu just out of curiosity that its a lightweight version of Ubuntu. But I am using this Live CD for only lazyness’ sake!

The desktop was running with one Ubuntu installation I had on my last laptop which died 😦

Without installing it again I kept using that HDD on my desktop. But as I was carrying the HDD in my laptop’s bag for months the Ubuntu installation got bad sectors most probably. So it cant boot. And for being so busy I cant make time to fix the partition and revive those installations. Instead I am trying to adopt this minimalistic habit of using the least installed softwares and settings.

I use a Nokia 2730c for my home internet as I can use the internet on the go through the phone and I can get connected on my Macbook through its bluetooth internet. I hate wires!

So here’s what I use to get the PC running with my minimalistic settings.

1. Downloaded a copy of FireFox4.0 and downloaded some of the Add-ons like: Echofon, Firebug, Yslow etc.

2. Downloaded the ibus-m17n package with dependencies to another folder. Also some other softwares(minimal LAMP stack) like Skype with dependencies as I regularly need to contact with clients. And kept a file called: m17n there. Content of that file is:
export GTK_IM_MODULE=ibus
export XMODIFIERS=@im=ibus
export QT_IM_MODULE=ibus

4. Kept another file called modem with contents:
Phone=*99#
Username=waps
Password=waps

5. Another file is called bootstrap with content:
dpkg-reconfigure tzdata
cat m17n >> /home/ubuntu/.bashrc
cat modem >> /etc/wvdial.conf

So, whenever I turn on my laptop I am having to go through these steps:
go to that folder and hit F4 (opens that folder in terminal)
I copy the whole path like:
/media/E4A00195A0016EFC/bootstrap
And apply the command:
sudo -i
then, dpkg -i *.deb
and then,
./bootstrap
consecutively running the following two connects me to internet immediately:
wvdialconf
wvdial

This is kind of laziness but I am doing this on purpose on the philosophy that I am not heavily dependent upon too much customizations or softwares. And I wont like to regret much after crashing harddisks 🙂

উবুন্তুতে নকিয়া বা অন্য মোবাইল দিয়ে EDGE/GPRS ইন্টারনেট ব্যবহার (সহজতম পদ্ধতি)


নকিয়া বা অন্যান্য বেশিরভাগ মোবাইল যদি ডাটা কেবল দিয়ে কানেক্ট করেন তাহলে উবুন্টুতে এমনকি উইন্ডোজের চেয়েও সহজে তাকে মোডেম হিসেবে ব্যবহার করতে পারবেন। আমার অভিজ্ঞতা থেকে দেখলাম অরিজিনাল কেবল পাবার কোনো দরকার নেই, মাত্র ১২০টাকা দিয়ে যেকোন সাপোর্টেড মডেলের কেবল কিনে নিতে পারেন মোতালেব প্লাজা বা ইস্টার্ন প্লাজা এসব স্থান থেকে(এই বুদ্ধিটি হাসিন ভাইয়ের দেয়া, যদিও গ্রমীনফোন থেকে বলে দেয়া হবে ৪৫০০টাকার অরিজিনাল কেবল কিনে নিতে)। এটাও ঠিক ওগুলোর অনেক গুলোই আবার কোনো কাজই করবে না। কিন্তু হাল ছাড়ার কিছু নেই(মাত্র ১২০টাকার মামলা!)।
নকিয়া ৬০২০, ৬০৩০, ৬০১০ এগুলোর জন্য আছে CA-42 আবার N70 এবং আরো কয়েকটির জন্য CA-53.

১। প্রথমে Alt+F2 চাপুন তাহলে একটি ছোট্ট ডায়ালগ বক্স আসবে, সেখানে টাইপ করুন : gnome-terminal এবং এন্টার কী চাপুন।
২। একটি কালো উইন্ডো আসবে যা কিনা টার্মিনাল নামে পরিচিত। এটি দেখে ভয় পাবার কিছু নেই। এর রং আপনার ইচ্ছেমতো বদলাতেও পারবেন (আপাতত সে কথায় যাচ্ছিনা)
৩। এই টার্মিনাল উইন্ডোতে লিখুন : sudo wvdialconf । এটি করার আগে আপনার কেবলটি মোবাইলে যুক্ত করুন এবং কম্পিউটারে। কমান্ডটি দিয়ে এন্টার চাপলে আপনার পাসওয়ার্ড চাইবে, লিখে এন্টার করুন। দেখবেন আপনার মোডেম বা মোবাইলের মোডেমের সব অবস্থা যাচাই করে যা সেটা করা দরকার সব সেট করছে।
এডিট করে নিতে হবে /etc/wvdial.conf ফাইলটি
৪। যদি ওটি ঠিকভাবে শেষ হয় তাহলে একটি ফাইল তৈরি হবে /etc/wvdial.conf নামে। এবার ওটি খুলুন — ওই টার্মিনালেই: sudo gedit /etc/wvdial.conf
আবারো পাসওয়ার্ড চাইবে, পাসওয়ার্ড লিখে এন্টার চাপুন।
৫। দেখবেন শেষের তিনটি লাইন ; দিয়ে কমেন্ট করা (অর্থাৎ অকেজো করা)। সেমিকোলন( মুছে অন্য লাইনের মতো করে দিন। একটি লাইনে যেখানে ফোন নম্বর লেখার স্থান ওখানে *99***1# লিখুন বা *99# বা *99***#
user name ও password একই রকম দিন
Phone = *99***1
Username = x
Password = x
৬। একটি কাজই বাকী রয়ে গেছে। ফাইলটির উপরের দিকে দেখুন Init2= এর পর কিছু লেখা এই লাইনের শেষে এন্টার চেপে নতুন লাইন নিন আর তাতে লিখুন: Init3= AT+CGDCONT=1,,”gpinternet” ফাইলটি সেভ করে বন্ধ করে দিন।
ব্যাস! কঠিন অংশটুকু শেষ। আমি অনেক বেশি করে লিখলাম কিন্তু কাজ বেশি নয়।
৭। সেটিং করা যেহেতু শেষ এখন থেকে প্রতি বার ইন্টারনেট কানেক্ট করতে কেবল একবার টার্মিনালে যাবেন: আর টাইপ করবেন: sudo wvdial এন্টার চাপলে আপনার পাসওয়ার্ড চাইবে, দিয়ে এন্টার করলেই হিজিবিজি হিজিবিজি লেখা চলতে থাকবে আর ইন্টারনেটে কানেক্ট হয়ে যাবেন। হিজিবিজিগুলোর মানে পড়া যায় কিন্তু আমরা এখন তা শিখবো না।
এখন ইন্টারনেটে যা যা করা দরকার করতে থাকুন। কানেক্ট করতে পারলে এখানে এসে ধন্যবাদ দিয়ে যেতে ভুলবেন না। এ ব্যাপারে কোনো প্রশ্ন থাকলেও করতে পারেন এখানে।

[Dialer Defaults]
Init1 = ATZ
Init2 = ATQ0 V1 E1 S0=0 &C1 &D2 +FCLASS=0
Init3 = AT+CGDCONT=1,”IP”,”gpinternet”
Modem Type = USB Modem
Baud = 460800
New PPPD = yes
Modem = /dev/ttyACM0
ISDN = 0
Phone = *99#
Password = x
Username = x

যদি আপনার Wvdial কোনো মোডেম ডিটেক্ট না করে তাহলে উপরের কোডটি পেস্ট করে তাতে লাল চিহ্নিত অংশগুলো খেয়াল করুন।

গ্রামীন ফোন জানালো উবুন্তু/লিনাক্স ব্যবহারকারী ইন্টারনেট নিয়ে সমস্যা আসে লাখে একটি এবং তারা একজনও জানেনা কি করে সমাধান দিতে হয়। একই অবস্থা : সিটিসেল কাস্টমার কেয়ার, বাংলালিঙ্ক সবার। আর গ্রামীনফোন এতোই ফকির যে গত ১৮ই সেপ্টম্বর আমি ১২১ এ ফোন করে বললাম: “ভাই আমার মোবাইলে মাত্র ৩টাকা আছে, কেননা এটি আমি কল করার জন্য ব্যবহার করিনা, আমার AT+CGDCONT=1,,”gpinternet” স্ট্রীংটি দরকার ছিল” উত্তরে যা বললো তাতে আমার আক্কেল গুড়ুম! বলে, “বাইরে গিয়ে চার্জ করে আসুন, তারপর কল করুন”। আমি অনুরোধ করেছিলাম হয় sms নাহয় কলব্যাক করে এটি জানিয়ে দেবার জন্য। আমি তাকে বললাম একটু আগে আমি যে ১১৫০টাকা প্রিপেইড করে ৩০দিনের নিরবচ্ছিন্ন নেট নিলাম আপনাদের তা কি ভুল করলাম(বলা বাহুল্য আমি তাদের নেট ৩ বছরের বেশি সময় ধরে ব্যবহার করছি)? কিন্তু সেই “চুঙ্গিওয়ালা” আমাকে জানালোই না, যথারীতি আমার লাইন কেটে গেলো কথা কাটাকাটি আর অনুরোধরত অবস্থায়। আমাকে জানানো হয়েছে, গ্রামীন ফোন কাস্টমার কেয়ার কখনো কলব্যাক করেনা! তারপর ১ঘন্টা মোবাইলের IM অ্যাপ্লিকেশন দিয়ে জিটক, ইয়াহুতে থাকা বন্ধুদের ধরে ওই স্ট্রিংটি সংগ্রহ করতে পেরেছিলাম।